লোকাল মেধাকে গ্লোবাল মেধায় রূপান্তরে কাজ করছে স্টাডি সলিউশন্স

বিদেশে উচ্চশিক্ষার স্বপ্নপূরণে কাজ করছে স্টাডি সলিউশন্স। বাংলাদেশে যেসকল শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে ইচ্ছুক তাদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি, পড়াশুনা, টিউশন ফি ব্যবস্থাপনা এবং পড়াশুনার পাশাপাশি কাজ সংক্রান্ত বিষয়ে সার্বিক সহযোগীতা করে আসছে বিদেশে উচ্চশিক্ষায় সহায়তা দানকারী প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৭ সাল থেকে এটি যাত্রা আরম্ভ করে। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানোর বিষয়ে ব্যাপক কার্যক্রম নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।

এক নজরে দেখে নিন লুকিয়ে রাখুন

 গ্রাজুয়েট ফাইভ হানড্রেড প্রজেক্ট

লোকাল মেধাকে গ্লোবাল মেধায় রূপান্তরে ‘গ্রাজুয়েট ফাইভ হানড্রেড প্রজেক্ট’ একটি অনন্য উদ্যোগ। পাঁচশত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে ব্রিটিশ গ্রাজুয়েট হিসেবে তৈরির লক্ষ্যে প্রজেক্টটি হাতে নিয়েছে স্টাডি সলিউশন্স। গ্রাজুয়েট ফাইভ হানড্রেড প্রজেক্টির মাধ্যমে এমন কিছু ব্রিটিশ গ্রাজুয়েট তৈরি হবে- যারা যুক্তরাজ্য থেকে শিক্ষা নিয়ে দেশ ও জাতি গড়ায় ভূমিকা রাখবে। যারা এমন দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে ওঠবে যাতে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে।

প্রজেক্টটির ব্যাপারে স্টাডি সলিউশন্সের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার এরশাদ আহমেদ নিশান বলেন, বিশ্বায়নের এই যুগে নিজেকে বদলে দিতে বিশ্বমানের শিক্ষা প্রয়োজন। তাইতো বাংলাদেশের অনেক শিক্ষার্থী বিদেশে পড়তে যাবার কথা ভাবেন। অনেকে পড়াশোনার জন্য বিদেশে যেতে চান। অনেকে যেতে চান ভালো ভবিষ্যৎ তৈরির চিন্তা মাথায় নিয়ে।

তিনি আরো বলেন, এজন্যই বিদেশে উচ্চশিক্ষায় বিনাখরচে সেরা সেবা দিয়ে আগ্রহীদের বিশ্বস্ত বন্ধুতে পরিণত হয়েছে স্টাডি সলিউশন্স। অনেক প্রতিষ্ঠানের ভিড়েও দ্রুততর সময়ের মধ্যেই শিক্ষার্থীরা শতভাগ আস্থা রাখতে পারছে। বিদেশগামী শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের নির্ভরতা অর্জন করে স্বস্তির আশ্রয়ে পরিণত হয়েছে। জীবনে সাফল্যের সিঁড়ি গড়তে সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

গ্রাজুয়েট হানড্রেড প্রজেক্ট

২০২১ সালে গ্রাজুয়েট হানড্রেড প্রজেক্ট চালু করেছিল স্টাডি সলিউশন্স। আলহামদুলিল্লাহ প্রজেক্টটি সফল হয়েছে। এই প্রজেক্টের আওতায় ইউকের ইউনিভার্সিটি অব গ্রীনউইচ, ইউনিভার্সিটি অব পোর্টস মাউথ, ইউনিভার্সিটি অব সাউথ ওয়েলস, কভেন্ট্রি ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব এভারডিন, ইউনিভার্সিটি ফর দ্য ক্রিয়েটিভ আর্টস, কিংস্টন ইউনিভার্সিটি, লীডস ব্যাকেট ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অফ হাডারসফিল্ড, ইউনিভার্সিটি অব সাউথ ব্যাংক, টেসাইড ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব বেডফোর্ডশায়ার ইত্যাদিতে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা গিয়েছে।

গ্রাজুয়েট হানড্রেড প্রজেক্টে যাওয়া শিক্ষার্থীরা বলেন, আমার বিদেশে উচ্চশিক্ষায় আগ্রহ বরাবরই ছিল। তবে এই সেবা নিতে গিয়ে প্রতারিত হবার আশঙ্কাও ছিল। হাজার ধোঁকার ভিড়ে হারিয়ে যাবার ভয় ছিল। তবে স্টাডি সলিউশন্সের সঠিক সেবা পাওয়ায় দুশ্চিন্তা দূর হয়। বিদেশে উচ্চশিক্ষার আমার সাধকে সাধ্যের পর্যায়ে নিতে আন্তরিক সহযোগিতা করায় আমি স্টাডি সলিউশন্সের প্রতি গভীরভাবে কৃতজ্ঞ।

শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নে স্টাডি সলিউশন্স

ইউনিভার্সিটি অব পোর্টস মাউথে অধ্যয়নরত খালেদা বেগম রুজি বলেন, আমি আবেদন করা থেকে শুরু করে ভিসা পর্যন্ত স্টাডি সলিউশন্স থেকে অনেক হেল্প পেয়েছি। স্পাউস ভিসার ক্ষেত্রেও অনেক সহযোগিতা পেয়েছি। আমরা স্টাডি সলিউশন্সের সেবায় অনেক খুশি।

ইউনিভার্সিটি অব সাউথ ওয়েলসে অধ্যয়নরত মো. গোলাম রহমান চৌধুরী বলেন, স্টাডি সলিউশন্স টীম আমাকে গাইডলাইন দিয়েছে। অনেক সহযোগিতা করেছে। যেসব শিক্ষার্থী ইউকেতে যেতে ইচ্ছুক তারা স্টাডি সলিউশন্সের সহায়তা নিতে পারেন।

ইউনিভার্সিটি অব পোর্টস মাউথে অধ্যয়নরত সবুজ দত্ত বলেন, আমি এমএসসি ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ম্যানেজমেন্ট মাস্টার্স কোর্সে পড়ছি। আমার ভিসা প্রাপ্তিসহ প্রত্যেকটি ধাপে খুব আন্তরিক সাড়া পেয়েছি। আপনারা স্টাডি সলিউশন্সে আসলে সর্বোচ্চ সেবা পাবেন। আপনাদের স্বপ্ন ও আকাঙ্ক্ষা পূরণে এগিয়ে যেতে পারবেন।

ইউনিভার্সিটি অব পোর্টস মাউথে ফয়সাল আহমেদ বলেন, আমার বিদেশে উচ্চশিক্ষার জার্নি সফল করার পেছনে স্টাডি সলিউশন্স চমৎকার সাপোর্ট দিয়েছে। মানসিক সাপোর্ট দিয়েছে। ভিসা পাওয়া থেকে শুরু করে প্রতিটি ধাপে হেল্প করেছে। স্টাডি সলিউশন্সের এরশাদ ভাই খুবই ভালো মানুষ। যেকোনো সময় ফোন করলে সাড়া পেতাম। অনর‌্যরাও যেকোনো সমস্যা দ্রুত সমাধান করায় ছিল যথেষ্ট আন্তুরিক। সব মিলিয়ে আমি খুবই সন্তুষ্ট।

 ইউনিভার্সিটি অব সাউথ ওয়েলসে এমবিএ গ্লোবালে অধ্যয়নরত মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, ভিসা পেতে গিয়ে যথেষ্ট সহযোগিতা পেয়েছি স্টাডি সলিউশন্সের কাছ থেকে। স্টাডি সলিউশন্স পরিবার সর্বোচ্চ আন্তরিকতা দেখিয়েছে। যখনই প্রয়োজন হয়েছে তখনই তাদেরকে পাশে পেয়েছি। আবেদন করা থেকে শুরু করে সকল ইন্টারভিউ এমনকি ভিসা পাওয়া পর্যন্ত সব ক্রেডিট স্টাডি সলিউশন্সের।

ইউনিভার্সিটি অব পোর্টস মাউথে ইন্টারন্যাশাল বিজনেসে অধ্যয়নরত মারুফ হোসেন বলেন, স্টাডি সলিউশন্সের মাধ্যমে ভিসা প্রসেসিং থেকে শুরু করে ইউকেতে আসার পরও অনেক হেল্প করেছে। ইউকেতে কিভাবে ব্যাংক একাউন্ট খুলবো, এনআই কিভাবে অ্যাপ্লাই করবো, জব খোঁজার ব্যাপারে ও থাকার ব্যাপারে আমাকে প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা দিয়েছে। যারা ইউকেতে পড়তে আসতে চান তাদের বলবো, স্টাডি সলিউশন্সের মাধ্যমে আসেন।

স্টাডি সলিউশন্স পরিবার

স্টাডি সলিউশন্স এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার এরশাদ আহমদ নিশান। শিক্ষার্থীদের আবেদন প্রক্রিয়ায় চূড়ান্ত মূল্যায়ন ধাপ পর্যন্ত প্রতিটি ধাপে পেশাদারিত্ব সম্পন্ন যোগ্য ও অভিজ্ঞ কাউন্সিলর এবং অন্যান্য সাহায্য প্রদানকারী টিমের সাথে কাজ করেন তিনি।

প্রতিষ্ঠানটির হেড অফিস ঢাকার বনানীতে। এছাড়াও দেশের সিলেট, চট্টগ্রাম ও মৌলভীবাজারে শাখা অফিস রয়েছে। বিদেশেও শক্তিশালী নেটওয়ার্ক ও শাখা রয়েছে।  অভিজ্ঞ পেশাদার টীম ও ভ্রমণ পরামর্শদাতারা বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণে আগ্রহী শিক্ষার্থীদেরকে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য ও দিক-নির্দেশনা প্রদান করে ও তাদের পছন্দমত প্রতিষ্ঠানে ভর্তির ব্যবস্থা করে থাকে।

যেখানে আমাদের নিবেদিত প্রাণ কর্মকর্তাগণ সেরা পরামর্শ ও আন্তরিক সেবা প্রদান করেন, মানসম্মত আলোচনা ও নৈতিক উপদেশ দেন। উন্নত শিক্ষা বিষয়ক সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে আবশ্যক এবং মানসম্মত সেবা প্রদানই এর জন্য একটি ট্রেডমার্ক।

প্রতিষ্ঠানটির এডমিশন বিভাগের অফিসার রোকসানা হোসাইন শান্তা বলেন, স্টাডি সলিউশন্স বিদেশগামী শিক্ষার্থীদের স্বপ্নের পথে এগিয়ে যাবার সহযাত্রী। প্রতিষ্ঠানটি বিদেশে উচ্চশিক্ষায় সঠিক সেবা নিশ্চিত করছে। এক ঝাঁক দক্ষ ও অভিজ্ঞ টীম রয়েছে। বিদেশে গমণেচ্ছু শিক্ষার্থীদের কল্যাণে তাদের সেবা। যা দৃষ্টিভঙ্গি ও ক্যারিয়ার ভাবনা বদলে দিতে পারে। দেশের বাইরে শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষা নেওয়ার ক্ষেত্রে সার্বিক দিকনির্দেশনা, পরামর্শ ও সহযোগিতা দিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠানটি।

এরশাদ আহমদ নিশান

স্টাডি সলিউশন্স এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার এরশাদ আহমদ নিশান। জন্ম টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুরে। যুক্তরাজ্য এবং নিউজিল্যান্ডের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। নিউজিল্যান্ডের স্কাই টিভি, লন্ডন সাউথ ব্যাংক স্টুডেন্টস ইউনিয়ন, ইউনিভার্সাল সলিসিটরস, ব্রিটিশ রেডক্রস, মেডিসিন্স স্যান্স ফ্রন্টিয়ারেস (এমএসএফ) এবং সেভ দ্যা এজ- এ কাজ করেছেন।

তাঁর আন্তর্জাতিক পর্যায়ের শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নানা অভিজ্ঞতার কারণে বিদেশে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে সম্ভাব্য সকল সুযোগ-সুবিধা বা অসুবিধার ব্যাপারে শিক্ষার্থীদেরকে পূর্বেই অবগত করায় তাকে সক্ষম করেছে।  তিনি নিউজিল্যান্ড থেকে ব্যারিস্টারি এবং যুক্তরাজ্য থেকে এলএলবি ও এলএলএম সম্পন্ন করেন।

বহির্বিশ্বে শিক্ষার সুযোগ প্রকল্প, ব্যাবসায় ক্ষেত্রে কাস্টমারদের উপযুক্ত উপদেশ প্রদান,বাণিজ্যিক বিবাদের সমাধান,লোন সিন্ডিকেশন,বিদেশে বিনিয়োগ এবং অপরাধ মামলা নিরসনে বাংলাদেশের শীর্ষ আইন সহায়তা প্রতিষ্ঠান আজাদ এন্ড কোম্পানিতে কাজের মাধ্যমে তিনি পেশাগত উৎকর্ষতা অর্জন করছেন।

স্টাডি সল্যুশন্সের লক্ষ্য অর্জনে তার অবিরাম সংগ্রাম ও সততা এবং দেশে-বিদেশে শক্তিশালী নেটওয়ার্কের মাধ্যমে শিক্ষা বিষয়ক পরামর্শ প্রদানে পারদর্শীতা স্টাডি সল্যুশন্সকে বিশ্বস্ত শিক্ষা বিষয়ক পরামর্শদাতা সংস্থায় পরিণত করেছে। সেবার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে ও শিক্ষার্থীদের সর্ব্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করতে তিনি বদ্ধ পরিকর। শিক্ষার্থীদের আবেদন প্রক্রিয়ায় চূড়ান্ত মূল্যায়ন ধাপ পর্যন্ত প্রতিটি ধাপে পেশাদারিত্ব সম্পন্ন যোগ্য ও অভিজ্ঞ কাউন্সিলর এবং অন্যান্য সাহায্য প্রদানকারী টিমের সাথে কাজ করেন তিনি।

স্টাডি সলিউশন্স কেন অনন্য?

বিদেশে উচ্চশিক্ষায় সেবাদানকারী স্টাডি সলিউশন্স শিক্ষার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা, কাজের অভিজ্ঞতা, আর্থিক সক্ষমতা এবং আগ্রহ ও ইচ্ছার উপর ভিত্তি করে উপযুক্ত দেশ, উপযুক্ত বিষয় এবং বিশ্ববিদ্যালয় বিবেচনা করতে পরামর্শ দেয়। বিদেশে উচ্চশিক্ষা লাভের মাধ্যমে উন্নত ক্যারিয়ার গঠনের স্বপ্নপূরণে বিশ্বের বিভিন্ন নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ব্যবস্থা করে সংস্থাটি। ফলে স্টাডি সলিউশন্সের উপর আস্থা রাখে শিক্ষার্থীরা। স্টাডি সলিউশন্সের সেবাসমূহ হচ্ছে:

বিনামূল্যে বিদেশে শিক্ষা বিষয়ক পরামর্শ দেয় স্টাডি সলিউশন্স

যখন কোনো বিষয়ে অধ্যয়নের পরিকল্পনা গ্রহণ করবেন তখন সেটা মানসিক চাপের সৃষ্টি করে, অনেক সময় ব্যয় হয় এবং সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগতে হয়। এটা আরো কঠিন অবস্থার সৃষ্টি করে যখন কেউ বিদেশে কোনো বিষয়ে অধ্যয়ন করতে চায়। বিদেশে উচ্চশিক্ষার ব্যপারে সিদ্ধান্ত নিতে গিয়ে যে ধরনের প্রশ্নের সম্মুখীন হন সেগুলো হলো: বিদেশে শিক্ষাগ্রহণ আসলেই কি ফলপ্রসু? কোথায় পড়তে যাব? স্কলারশীপ প্রাপ্তির জন্য আমি কি উপযুক্ত? ভর্তি এবং ভিসা প্রক্রিয়ায় কী কী নথিপত্র লাগবে? ভিসার আনুষ্ঠানিকতাগুলো কী কী? বিদেশে পড়তে গিয়ে কোথায় থাকব?

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যপার হলো কোন বিষয় নিয়ে পড়লে উন্নত ক্যারিয়ার গঠনে দীর্ঘ মেয়াদে সবচেয়ে ভালো ফল বয়ে নিয়ে আসবে? এসব বিষয়ে স্টাডি সল্যুশন্স আপনাকে এবং আপনার পরিবারকে দিক-নির্দেশনা প্রদান করে। বিদেশে উচ্চশিক্ষার ব্যাপারে বিনামূল্যে পরামর্শ প্রদান, ভিসা সহায়তা, সাক্ষাতকারের জন্য পূর্বপ্রস্তুতি, দেশ ত্যাগের পূর্বে পরামর্শ এবং অন্যান্য সেবা-সহায়তা প্রদান করে। শিক্ষাগত যোগ্যতা, এক্সট্রা কারিকুলার ও অন্যান্য যোগ্যতা, ইংরেজিতে কথা বলার দক্ষতা ইত্যাদি মূল্যায়নের পর আবেদনের প্রেক্ষিতে সর্ব্বোচ্চ সাফল্য এনে দেয়ার চেষ্টা করে থাকে।

বিভিন্ন দেশের পরিচিতি প্রদান করে স্টাডি সলিউশন্স

বিদেশে শিক্ষাগ্রহণের ক্ষেত্রে প্রাথমিক ধাপ হলো দেশ বাছাই করা। স্টাডি সলিউশন্স বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জনতত্ত্ব, আবহাওয়া, সংস্কৃতি, জীবনপ্রণালী এবং শিক্ষাপদ্ধতি সম্পর্কে অবহিত করে অভিভাবকের ভূমিকা পালন করে। উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য দেশ নির্বাচনের সময় শিক্ষার্থীর চাহিদাকে মাথায় রেখে শিক্ষাক্ষেত্রে বিনিয়োগ করতে, স্কলারশীপ অনুসন্ধান, ভিসাপ্রাপ্তি ও অন্যান্য বিষয়সমূহ মূল্যায়ন করা  হয়ে থাকে। কাছাকাছি আরামদায়ক বাসস্থানে থাকলে ভালোভাবে অধ্যয়নের জন্য সুন্দর পরিবেশ পাওয়া যায়। স্টাডি সলিউশন্সের কাউন্সিলররা ব্যক্তিগতভাবে পরামর্শ প্রদান করে এবং ই-মেইলে এ সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য প্রেরণ করেন।

বিষয় নির্বাচনে সহযোগিতা করে স্টাডি সলিউশন্স

জীবনের লক্ষ্যকে সাফল্যের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দিতে বিষয় নির্বাচনের সময় স্টাডি সলিউশন্সের কাউন্সিলররা শিক্ষাগত যোগ্যতা, ক্যারিয়ারের লক্ষ্য এবং আগ্রহ বিবেচনা করে যা ক্যারিয়ার গঠনের জন্য অতীব জরুরি। বিষয় নির্বাচনের সময় শিক্ষার্থীর সাথে সহযোগি হিসেবে কাজ করে যা ভবিষ্যতে সম্ভাব্য সেরা ক্যারিয়ার গঠনে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। স্টাডি সলিউশন্সের কাউন্সিলররা বিশ্বের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অফারকৃত বিষয়সমূহ নিয়মিত আপডেট করে। কাউন্সিলরদের কাছ থেকে বিনামূল্যে পরামর্শ গ্রহণের সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা পান।

ভর্তি সহায়তা করে স্টাডি সলিউশন্স

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের ভর্তি প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয় যেটা শিক্ষার্থীকে বিভ্রান্ত করে। ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত বিপুল তথ্য তাকে আরো বেশি বিভ্রান্তিতে ফেলতে পারে। পারিপার্শ্বিক অবস্থা এবং যোগ্যতা বিবেচনা করে এসমস্ত বিপুল তথ্য থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য বাছাই করে উপযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচন করতে সহায়তা করা হয়।

আবেদন গৃহিত হওয়ার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সুযোগ পাওয়ার লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের বিভিন্ন নিয়ম-কানুন নিয়মিত আপডেট করা হয়। স্টাডি সলিউশন্সের মাধ্যমে আবেদন গৃহিত হওয়ার হার অনেক বেশি। যা প্রতিষ্ঠানটিকে বিশ্বস্ত শিক্ষাপরামর্শদাতা সংস্থায় পরিণত করেছে।

আর্থিক ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে জানায় স্টাডি সলিউশন্স

তুলনামূলক কম খরচে শিক্ষাগ্রহণ, একইসাথে যে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে চান তার নিকটবর্তী থাকার ব্যবস্থা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের খরচাবলির প্রকৃতি বিবেচনা করে স্টাডি সলিউশন্স- এ অভিজ্ঞ হিসাববিদগণ উপযুক্ত হিসাব প্রস্তুত করেন। দেশ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিষয় নির্বাচনের সময় আগ্রহকে আন্তরিকভাবে বিবেচনা করেন। এছাড়া স্কলারশিপ প্রাপ্তির সুযোগ এবং শিক্ষার ক্ষেত্রে আর্থিক সহায়তা পাওয়ার বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পারেন।

স্টাডি সলিউশন্স বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ পেতে সহায়তা প্রদান করে। একাডেমিক পারফরমেন্স অনুযায়ী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কলারশিপ গ্রহণ করতে পারেন। স্কলারশিপ ও অনুদান বিদেশে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করে এবং অর্থের প্রাথমিক উৎস হিসেবে কাজ করে, বিশেষ করে স্বল্প বাজেট থাকলে। কাউন্সিলররা বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কলারশিপের ব্যাপারে শিক্ষার্থীকে অবহিত করে।

নিরাপত্তা সম্পর্কে অবহিত করে স্টাডি সলিউশন্স

যখন কেউ হাজার মাইল দূরে অবস্থান করেন তখন পরিবার তার ব্যাপারে অনেক বেশি উদ্বিগ্ন থাকে। স্টাডি সলিউশন্স বিশ্বব্যাপি এমন সব প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করে যেগুলো ইউনেস্কো ঘোষিত বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ দেশ হিসেবে পরিচিত। সেগুলো হলো- কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। বিদেশে শিক্ষাগ্রহণের ক্ষেত্রে নিরাপদ পরিবেশ মানসিক চাপমুক্ত হয়ে শিক্ষা গ্রহণ এবং প্রবাস জীবনকে আনন্দময় করে তোলে।

বিদেশে ক্যারিয়ার গঠনে দিকনির্দেশনা দেয় স্টাডি সলিউশন্স

বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের পর কাউন্সিলররা আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার গঠনের দিকনির্দেশনা প্রদান করে। শিক্ষাগ্রহণের সময় এসব বিষয়ে জেনে নিতে পারবেন যা বিশ্বের বিভিন্ন প্রতারণা চক্রের হাত থেকে বাঁচতে অত্যন্ত সাহায্য করবে। ক্যারিয়ার বিষয়ক কাউন্সিলরগণ শিক্ষা শেষে করণীয় সম্পর্কে প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করেন।

ভিসা সহায়তা দেয় স্টাডি সলিউশন্স

ভিসা একটি প্রবেশাধিকার ক্লিয়ারেন্স, যা ভিনদেশে প্রবেশ করার জন্য অনুমতি প্রদান করে। বিদেশে অধ্যয়নের জন্য শিক্ষার্থীদের স্টুডেন্ট ভিসা বা স্টুডেন্ট পাস থাকতে হবে। বিশ্বব্যাপি নানা নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ প্রতিনিয়ত ভিসা সম্পর্কিত নিয়মাবলি পরিবর্তন করে।

যদি এসব বিষয়ে অনবহিত থাকলে সাথে সাথেই ভিসা বাতিল হয়ে যাবে। বিদেশে উচ্চশিক্ষার ব্যাপারে আপডেটকৃত বিভিন্ন নিয়ম-কানুন সম্পর্কে পর্যাপ্ত অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কর্মকর্তাদের টিম রয়েছে। প্রতিবছর স্টাডি সলিউশন্স অনেক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদেরকে  বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ব্যাপারে সহায়তা করছে।

শিক্ষার্থী-ভিসা এবং শিক্ষাসম্পর্কিত ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাসমূহ  পাওয়া সবসময় সহজতর হয় না।  যে কোনো দেশ শিক্ষার্থীর শিক্ষার সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়ে তার থেকে উপকার গ্রহণ করতে চায় কিন্তু তার কৃত অপকর্মের দায়ভার গ্রহণ করতে চায় না। এজন্য প্রত্যেক দেশের ভিন্ন ভিন্ন নিয়ম ও নীতিমালা রয়েছে।

ভিসা প্রাপ্তির জন্য অনেক দলিল পত্রাদি ও নানা আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে হয়।  রয়েছে অভিজ্ঞ ভিসা পরামর্শদাতা এবং প্রাক্তন ভিসা কর্মকর্তাদের একটি টিম যারা কয়েক দশক ধরে  বিশ্বের বিভিন্ন দূতাবাসের সাথে কাজ করছে এবং দ্রুত ভিসা প্রাপ্তি নিশ্চিত করছে।

বাসস্থান নির্বাচনে তথ্য সরবরাহ করে স্টাডি সলিউশন্স

আর্থিক সামর্থ্য বিবেচনা করে অসংখ্য বিকল্প ব্যবস্থার মধ্য থেকে সীমিত বাজেটের মধ্যে বিদেশে মানসম্পন্ন ও উপযুক্ত পরিবেশে বাসস্থান নির্বাচন করা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং একটি বিষয়। যাইহোক, যাতায়াত এবং কাজের অবস্থান বিবেচনা করে এমন একটি আবাসন নির্বাচন করা অতিব জরুরি, কেননা এটি আপনার খরচকে প্রায় ২০ ভাগ কমিয়ে দিতে পারে।

খরচ কমানোর ক্ষেত্রে এটা একটা ‘মিনি স্কলারশিপ’ হিসেবেও ভূমিকা রাখতে পারে। কাউন্সিলরগণ উপযুক্ত বাসস্থান সম্পর্কে পর্যাপ্ত তথ্য সরবরাহ করে এবং ইতিপূর্বে স্টাডি সলিউশন্সের মাধ্যমে যারা বিদেশে অধ্যয়নের জন্য গেছেন তাদের সাথে পরিচিত হতে সহায়তা করে।

ভ্রমণ বিষয়ক নির্দেশনা দেয় স্টাডি সলিউশন্স

বর্তমান বিশ্বে বিমান পরিবহনগুলির মধ্যে ব্যাপক প্রতিযোগিতার কারণে উপযুক্ত বিমান বাছাই করে ভ্রমণ করা কঠিন ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। বৈচিত্রময় ও নানা ধরনের বিমান ভাড়ার মধ্য থেকে উপযুক্ত বিমানটি বাছাই করে নিতে পারলে বিদেশে শিক্ষাব্যয় অনেক কমে যায়। স্টাডি সলিউশন্স- এর কাউন্সিলরগণ যাতায়াতের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য সরবারহ করে বিদেশে আপনার গবেষণা কার্যক্রম সম্পন্ন করতে সহায়তা করে।

ভাষাগত দক্ষতার উন্নয়নে প্রশিক্ষণ দেয় স্টাডি সলিউশন্স

যে কোনো হোস্ট দেশের চলিত ভাষায় সাবলিলভাবে  কথা বলতে না পারলে বিদেশে অধ্যয়ন করা খুব কঠিন হয়ে পড়বে। বেশিরভাগ দেশের লোকই ইংরেজিতে কথা বলে, তারা আশা করে আপনিও তাই করবেন, যা আপনার শিক্ষা এবং কর্মজীবনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

হোস্টদের সাথে তাদের ভাষায় যদি কথোপকথন করতে পারেন তাহলে সহায়তার জন্য আপনার অনুরোধ তারা আরো বন্ধুত্বপূর্ণ এবং গ্রহণযোগ্যতার সাথে গ্রহণ করবে। ইংরেজি পড়ায়, লেখায় এবং ইংরেজিতে কথা বলায় অনেক দক্ষ হলে নিয়োগকর্তারা সিভিতে আরও আগ্রহী হন, যা বিশ্ব বাজারে কাজ করার যোগ্যতা প্রমাণ করবে।

স্টাডি সল্যুশন্স ইংরেজি ভাষায় কথা বলার দক্ষতা উন্নত করতে আগ্রহী প্রার্থীদের উৎসাহিত করে। কোচিং ও প্রশিক্ষণ অধিবেশনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের প্রস্তুত করে। পছন্দের ইংরেজি ভাষাভাষি দেশে যাতে সহজে ভিসা পান সেলক্ষ্যে স্টাডি সলিউশন্স ইংরেজির ভাষাগত উন্নয়নে প্রশিক্ষণ প্রদান করে। বিশেষজ্ঞ ইংরেজি প্রশিক্ষকদের একটি প্যানেল রয়েছে যারা প্রার্থীকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে সেরা মানের আইইএলটিএস প্রশিক্ষণের উপর গুরুত্ব দিয়ে থাকে।

 

About পরিবার.নেট

পরিবার বিষয়ক অনলাইন ম্যাগাজিন ‘পরিবার ডটনেট’ এর যাত্রা শুরু ২০১৭ সালে। পরিবার ডটনেট এর উদ্দেশ্য পরিবারকে সময় দান, পরিবারের যত্ন নেয়া, পারস্পরিক বন্ধনকে সুদৃঢ় করা, পারিবারিক পর্যায়েই বহুবিধ সমস্যা সমাধানের মানসিকতা তৈরি করে সমাজকে সুন্দর করার ব্যাপারে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। পরিবার ডটনেট চায়- পারিবারিক সম্পর্কগুলো হবে মজবুত, জীবনে বজায় থাকবে সুষ্ঠুতা, ঘরে ঘরে জ্বলবে আশার আলো, শান্তিময় হবে প্রতিটি গৃহ, প্রতিটি পরিবারের সদস্যদের মানবিক মান-মর্যাদা-সুখ নিশ্চিত হবে । আগ্রহী যে কেউ পরিবার ডটনেট এর সাথে সঙ্গতিপূর্ণ যেকোনো বিষয়ে লেখা ছাড়াও পাঠাতে পারেন ছবি, ভিডিও ও কার্টুন। নিজের শখ-স্বপ্ন-অনুভূতি-অভিজ্ঞতা ছড়িয়ে দিতে পারেন সবার মাঝে। কনটেন্টের সাথে আপনার নাম-পরিচয়-ছবিও পাঠাবেন। ইমেইল: [email protected]

View all posts by পরিবার.নেট →

Leave a Reply

Your email address will not be published.