ধূমপান ছাড়ার কার্যকর উপায়

‘ধূমপানে বিষপান’ জেনেও অনেকেই ধূমপান করেন। যারা ধূমপান রোধ করার লক্ষ্যে আপ্রাণ চেষ্টা করছেন। কয়েকটি খাবার খেয়ে তারা সহজেই এ গতি ত্বরান্বিত করতে পারেন।

দুধ : ধূমপানের আগে এক গ্লাস দুধ খেলে সিগারেটের স্বাদ ভাল লাগবে না। দুধের পর সিগারেট খেলে মুখ তেতো হয়ে যাবে। ধূমপান ছাড়তে চাইলে সিগারেট খাওয়ার আগে দুধে ডুবিয়ে নিন। তিতকুটে স্বাদের চোটে খেতেই পারবেন না। সেই স্বাদ এক বার মনে থাকলে ধীরে ধীরে সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছা চলে যাবে।

শাকসবজি : দুধের মতোই শশা, গাজর, বেগুন, খেলেও সিগারেটের স্বাদ তেতো লাগে। ডায়েটে বেশি পরিমাণ শাকসবজি থাকলে সিগারেটের ওপর নির্ভরশরীলতা কমে।

কমলালেবু : সিগারেট শরীর থেকে ভিটামিন-সি শুষে নেয়। ফলে সিগারেটের নেশা বাড়ে। যদি ধূমপান ছাড়তে চান তবে নিয়মিত কমলালেবু, বেদানা জাতীয় ফল খান। রোজ ফলের রসও খেতে পারেন। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন-সি। যা সিগারেটের নেশা কমাতে সাহায্য করবে।

জিনসেং চা : নিকোটিনের প্রতি নেশা কমানোর জন্যে জিনসেং বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কারণ, মস্তিষ্কে অবস্থানকারী ট্রান্সমিটার ‘ডোপামিন’ সিগারেট সেবনের আকাঙ্ক্ষা কমিয়ে দেয়। জিনসেং চা পান ধূমপান আসক্তি কমিয়ে দুর্বল করে দেয়।

চিনিমুক্ত চুইংগাম : চুইংগাম আপনার মুখকে ব্যস্ত রেখে ধুমপানের তীব্র আকাঙ্ক্ষা কমিয়ে দেয়। এছাড়া সিগারেটের তুলনায় এটি অধিক সময়ে মুখে থাকে বলে সেটি সেবনের ইচ্ছেও কমিয়ে দেয়।

লবণাক্ত খাবার : যখনই সিগারেট খেতে ইচ্ছা হবে তখনই লবণাক্ত কিছু খেয়ে নিন। লবণাক্ত চিপস, বিস্কিট বা জিভে সামান্য নুন লাগিয়ে নিলেও সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছা চলে যাবে। নেশা কমবে।

আদা : সিগারেট খেতে ইচ্ছা হলে মুখে এক কুচি আদা রেখে চিবুতে থাকুন। অবিলম্বে সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছা চলে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *