পরিবারের যত্ন নিন, পরিবারকে সময় দিন

১. মাসে অন্তত একবার পরিবারের সব সদস্যের খোঁজখবর নিন

২. সাপ্তাহিক ছুটিতে বাচ্চাদের নিয়ে কোথাও বেড়াতে যান

৩. পরিবারের সবাইকে নিয়ে গাছ লাগান ( বারান্দায়, ছাদে টবে কিংবা বাড়ির উঠানে)

৪. ঘুমানোর সময় তেজষ্ক্রিয়তা থেকে বাঁচতে ওয়াইফাই ও মোবাইল বন্ধ রাখুন

৫. অপ্রয়োজনে লাইট ফ্যান বন্ধ রেখে বিদ্যুতের অপচয় রোধ করুন

৬. অপ্রয়োজনে গ্যাসের চুলা জ্বালিয়ে রাখবেন না

৭. পানির অপচয় রোধে সতর্ক থাকুন

৮. সন্তানের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তুলুন, আবেগগতভাবে সংযুক্ত হোন

৯. সপ্তাহে অন্তত একদিন বাচ্চার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়ার চেষ্টা করুন

১০. পরিবারে সবার পুষ্টিকর খাবার নিশ্চিত করুন ও স্বাস্থ্যকর অভ্যাস গড়ে তুলুন

১১. সন্তানকে বড়দের শ্রদ্ধা করতে এবং ছোটদের স্নেহ করতে শিখান

১২. পারিবারিক লাইব্রেরি গড়ে তুলুন

১৩. টেকসই ভবিষ্যতের জন্য পরিবার বাঁচান, সুস্থ সংস্কৃতি চর্চা বাড়ান

১৪. পরিবারকে গুরুত্ব দিন, পারিবারিক বন্ধন সুদৃঢ় করুন

১৫. প্রবীণবান্ধব হোন, নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ বার্ধক্য নিশ্চিত করুন

১৬. যৌতুক-সহিংসতা-নির্যাতন ও বৈষম্যমুক্ত পরিবার গড়ুন

১৭. অন্যদের যত্ন নেয়ার পাশাপাশি নিজেরও যত্ন নিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *