বিছানায় শিশুর প্রস্রাব করা বন্ধে যা করণীয়

প্রতিদিন বিছানায় প্রস্রাব করার ধারা পাঁচ-ছয় বছর বয়সেও বজায় থাকলে সেটি শিশুর দুষ্টামির কারণ নয়। মেয়েদের থেকে এই সমস্যা ছেলেদের মধ্যে বেশি দেখা যায়। স্নায়বিক গঠন অস্বাভাবিক এমন শিশুরা মূত্রথলির সম্পূর্ণতা অনুধাবন করতে পারে না। শারীরিক বা মানসিক চাপের কারণেও এই সমস্যা হতে পারে।

বিছানায় প্রস্রাব করার সমস্যায় শিশুকে শাস্তি দেয়া, প্রহার করা বা তাকে বকাঝকা করা উচিত নয়। তার বদলে এ ব্যাপারে শিশুকে সাইকোথেরাপি দেয়া যেতে পারে। শিশুকে আশ্বাস দেয়া দরকার যে এই সমস্যা ধীরে ধীরে ঠিক হয়ে যাবে। যেমন- রাতে প্রস্রাব না করলে শিশুকে প্রশংসা করতে হবে এবং ছোট উপহার দিলে শিশুকে পরোক্ষভাবে বিছানায় প্রস্রাব না করতে উৎসাহিত করা হয়।

তাছাড়া এ সমস্যার সমাধানে বাচ্চাকে পুরো এবটি দারুচিনি চিবিয়ে খেতে দিতে হবে। বা সকালের নাস্তায় দারুচিনি গুঁড়োর সঙ্গে চিনি মিশিয়ে খেতে দিতে হবে। খুব সহজভাবে বাচ্চাদের এই সমস্যাটিকে সারিয়ে তুলতে অলিভ অয়েল ব্যবহার করা যেতে পারে। পরিমাণ মতো অলিভ অয়েল সামান্য গরম করে বাচ্চার নিন্মাঙ্গের আশপাশে ভালো করে ম্যাসাজ করতে হবে। এ সমস্যা পুরোপুরি সারিয়ে তুলতে প্রতিদিন একইভাবে গরম অলিভ অয়েল ম্যাসেজ করতে হবে। শিশুদের বিছানায় প্রস্রাব করার সমস্যা রোধ করার জন্য মধু খুব উপকারী। প্রতিরাতে ঘুমানোর আগে শিশুকে এক চামচ মধু খেতে দিতে হবে। সকালের নাস্তার পর এক গ্লাস দুধের সঙ্গে এক চামচ মধু মিশিয়ে খাওয়াতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *