পেস্তা বাদামের অনেক গুণ

প্রতিদিন চিনাবাদামের মতোই পেস্তা বাদাম ব্যবহার করা যায়। এই বাদামটিতে রয়েছে অনেক পুষ্টিকর উপাদান। সুস্থ হৃদযন্ত্র, ওজন নিয়ন্ত্রণ আর ডায়াবেটিস বা উচ্চ রক্তচাপ সামলাতেও এ বাদাম ব্যাবহার করা হয়। পেস্তা বাদামের গুণাবলি-

পুষ্টি উপাদান

অনেক ধরনের খাদ্য উপাদান রয়েছে। কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, অ্যামাইনো এসিড, ফ্যাট. ভক্ষণযোগ্য ফাইবার ইত্যাদির কমতি নেই। খনিজের মধ্যে মিলবে ফসফরাস, পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম, আয়রন, ম্যাগনেশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, জিংক, কপার, সোডিয়ামের সেলেনিয়াম। ভিটামিনের মধ্যে এ, কে, সি, ই, বি-৬, থিয়ামাইন, বিরোফ্লাবিন, নিয়াসিনম ফোলেট, প্যান্টোথেনিক এসিড, কোলিন ও বিটাইন। মাত্র এক আউন্সে অন্যান্য বাদামের তুলনায় অনেক কম ক্যালরি আছে এতে। এর ফ্যাটও অন্যান্য বাদামের চেয়ে অনেক কম।

হৃদযন্ত্রের যত্ন

হৃদপিণ্ডের সঙ্গে ‘বন্ধুসুলভ’ আচরণ করে পেস্তা। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত পেস্তাবাদাম খেলে ক্ষতিকর এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে। ফলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি খুব একটা থাকে না। এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফাইটোস্টেরল এবং অসম্পৃক্ত ফ্যাটি এসিড হৃদস্বাস্থের দেখভাল করে।

ওজন নিয়ন্ত্রণ

যাঁরা ওজন কমানোর চেষ্টায় আছেন, তাঁদের জন্য পেস্তা ভালো। গবেষণায় দেখা গেছে, কম মাত্রার ক্যালরি, উচ্চমাত্রার প্রোটিন, নিম্ন মাত্রার সম্পৃক্ত ফ্যাট আর উচ্চ মাত্রার অসম্পৃক্ত ফ্যাট সবই কিন্তু ওজন কমানোর জন্য সহায়ক।

ম্যাকুলার রোগ নিয়ন্ত্রণ

পেস্তায় আছে ক্যারোটেনয়েড অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যেমন: লুটেইন এবং জিয়াজানথিন। এই অ্যান্টি-অক্সিডেন্টগুলো বয়স সংক্রান্ত সমস্যা মোকাবেলা করে। তাই বয়স্কদের জন্য খুবই উপকারী। বোস্টনের টাফটস ইউনিভার্সিটির গবেষণায় বলা হয়, যেকোনো সবজির সঙ্গেই পেস্তার মিশেলে খাবারকে আরো পুষ্টিকর করে তোলা যায়।

ত্বকের শুষ্কতা

এটি ত্বকের খসখসে ভাব দূর করে। এর পক্ষে অবশ্য সম্পৃক্ত ফ্যাট মূল ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়। এই ফ্যাট তেল বহনের অন্যতম মাধ্যম হয়ে ওঠে। অ্যারোমাথেরাপি এবং ম্যাসাজ থেরাপির জন্য পেস্তার তেল খুবই উপকারী।

ডায়াবেটিস

পেস্তার অন্যতম সেরা গুণ হলো এই বাদাম ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সক্রিয়া থাকে। এটি ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণেও যথেষ্ট পারদর্শী। যাদের ডায়াবেটিস আছে, তাদের সুস্থ থাকতে সহায়তা করে পেস্তা। এই বাদামের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট গ্লাইকেশন প্রক্রিয়া নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে ডায়াবেটিস বাড়তে দেয় না।

About পরিবার.নেট

পরিবার বিষয়ক অনলাইন ম্যাগাজিন ‘পরিবার ডটনেট’ এর যাত্রা শুরু ২০১৭ সালে। পরিবার ডটনেট এর উদ্দেশ্য পরিবারকে সময় দান, পরিবারের যত্ন নেয়া, পারস্পরিক বন্ধনকে সুদৃঢ় করা, পারিবারিক পর্যায়েই বহুবিধ সমস্যা সমাধানের মানসিকতা তৈরি করে সমাজকে সুন্দর করার ব্যাপারে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। পরিবার ডটনেট চায়- পারিবারিক সম্পর্কগুলো হবে মজবুত, জীবনে বজায় থাকবে সুষ্ঠুতা, ঘরে ঘরে জ্বলবে আশার আলো, শান্তিময় হবে প্রতিটি গৃহ, প্রতিটি পরিবারের সদস্যদের মানবিক মান-মর্যাদা-সুখ নিশ্চিত হবে । আগ্রহী যে কেউ পরিবার ডটনেট এর সাথে সঙ্গতিপূর্ণ যেকোনো বিষয়ে লেখা ছাড়াও পাঠাতে পারেন ছবি, ভিডিও ও কার্টুন। নিজের শখ-স্বপ্ন-অনুভূতি-অভিজ্ঞতা ছড়িয়ে দিতে পারেন সবার মাঝে। কনটেন্টের সাথে আপনার নাম-পরিচয়-ছবিও পাঠাবেন। ইমেইল: [email protected]

View all posts by পরিবার.নেট →

Leave a Reply

Your email address will not be published.