হৃদয়জয়ী নেতৃত্বের পথ : নেতৃত্বের গাইডলাইন

মো. বাকীবিল্লাহ

হৃদয়জয়ী নেতৃত্বের পথ একটি অসাধারণ বই। তরুণ লেখক ও গবেষক আনিসুর রহমান এরশাদের দ্বিতীয় বই এটি। নেতৃত্ব ও হৃদয়জয়ী নেতৃত্ব বলতে কী বুঝায় এবং এটা কেমন করে সৃষ্টি হয়- তা খুবই সুন্দরভাবে বইটিতে প্রস্ফুটিত হয়েছে। সমাজের উন্নয়নের জন্য, পরিবর্তনের জন্য, মানুষের চিন্তার জগতে পরিবর্তন আনার জন্য কাজ করতে চাইলে নতুন নতুন উদ্যোগ প্রয়োজন। আইডিয়ার উন্নয়ন প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে বইটি সহায়ক হতে পারে। হৃদয়গ্রাহী কথামালায় তথ্যবহুল আলোচনা উপস্থাপন করা হয়েছে বইটিতে।

নেতৃত্বদানের কৌশল রপ্ত করার ক্ষেত্রে বইটি সহায়ক হবে। নেতৃত্বের ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো দরকার, তা বইটিতে খুব সুন্দরভাবে তুলে ধরা হয়েছে। নেতা এমন হবেন যে সবার দায় তিনি বুক পেতে নেবেন, কর্মীর ওজনটা বহন করবেন। তাদেরকে স্বপ্ন দেখাবেন, মোটিভেশন দেবেন। স্বপ্ন ও বাস্তবতার মধ্যে সেতুবন্ধনের কাজ করবেন।

অনেক নেতা নেতৃত্ব দেন; কিন্তু জনগণের মন জয় করতে পারেন না। মন জয় করার জন্য যা যা দরকার তার রসদ এই বইয়ে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। বইটি পড়লে ভবিষ্যত প্রজন্মের মনোজগতে পরিবর্তন আসতে পারে। কারণ বইটিতে পৃথিবীর নামি-দামি অনেক প্রতিষ্ঠিত ও সফল ব্যক্তিবর্গের কথা উল্লেখ রয়েছে। সব দল-মত-পথের লোকদের কাছেই বইটি আকর্ষণীয় হতে পারে। বইটি থেকে ধর্ম-বর্ণ-গোত্র নির্বিশেষ সবাই উপকৃত হতে পারেন।

লেখক চান এদেশের তরুণ এবং যুবসমাজ নিজেরা এমনভাবে গড়ে উঠুক যারা দেশ ও সমাজের জন্য কাজ করবেন। তারা এমন নেতৃত্বকে বেছে নেবেন যারা আগামী দিনের বাংলাদেশকে সুখী সমৃদ্ধশীল বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলতে সহায়তা করবে। বইটি উৎসর্গ করা হয়েছে মানবপ্রেমী নেতাদেরকে। যারা মানুষকে ভালোবাসেন, মানুষের কল্যাণে কাজ করেন। মানুষের জন্য নিজেদেরকে বিলিয়ে দিতে চান। বইয়ের লেখাগুলোর চর্চা করলে তরুণ প্রজন্ম বাস্তবধর্মী নেতৃত্ব উপহার দিতে পারবে।

তরুণ সমাজকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথ দেখানোর লক্ষ্যে এই মুহূর্তে বইটি খুবই প্রয়োজনীয়-গুরুত্বপূর্ণ। নয়টি অধ্যায় রয়েছে। লেখক অতীত ও বর্তমানের বিভিন্ন সেক্টরের নেতৃত্বের অবস্থান ও চিন্তাকে খুব চমৎকারভাবে উল্লেখ করেছেন।

বইটি পাঠকের মাঝে এমন সুন্দর সমাজের স্বপ্ন দেখাবে; যেখানে কোনো কষ্ট থাকবে না, মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণ হবে, ন্যায় প্রতিষ্ঠিত হবে এবং অন্যায় দূরীভূত হবে। নেতৃত্ব দানের দক্ষতার উন্নয়নে বইটি সবার জন্যই উপকারে আসবে। অদূর ভবিষ্যতে কোটি মানুষের হৃদয় জয় করার জন্য যে ধরনের নেতৃত্ব প্রয়োজন, যে ধরনের নেতৃত্ব সৃষ্টি হওয়া দরকার; সে বিষয়ে কথাবার্তাগুলো বইটির মধ্যে সুন্দরভাবে চলে এসেছে।

আনিসুর রহমান এরশাদ তথাকথিত জনপ্রিয় কোনো বিষয় বেছে নেননি। একটি অজনপ্রিয় কিন্তু জীবনের জন্য ও ব্যক্তি-সমাজ-রাষ্ট্র ব্যবস্থার জন্য প্রয়োজনীয় ইস্যু নেতৃত্ব। জাতীয় জীবনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ টপিক নেতৃত্বকেই তিনি বেছে নিয়েছেন।নেতৃত্বের বিভিন্ন পন্থা-পদ্ধতি-বৈশিষ্টগুলো গবেষণা কাজের পাশাপাশি প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে মানুষের উপকারে আসবে। বইটি অ্যাকাডেমিকভাবেও কাজে লাগানো যাবে।

অধ্যায়ভিত্তিক সাব-টাইটেল দিয়ে খুব সুন্দরভাবে বিন্যাস করা হয়েছে। মাঝে মাঝে ছবির ব্যবহারও রয়েছে।বইটির গেটাপ সুন্দর ও আকর্ষণীয়। ফুটনোটের ব্যবহার পাঠ উপযোগিতা বাড়িয়েছে।

বইটি থেকে অনেকে নেতৃত্বের ব্যাপারে অনুপ্রেরণা খুঁজে পাবে এবং লিডারশিপ প্রসেসে এগিয়ে আসবে বলে বিশ্বাস করি। মানুষ শুধুমাত্র সঠিক নেতৃত্বের অভাবে, নেতৃত্বের সঠিক বোঝাপড়ার অভাবে, জীবন ঘনিষ্ঠ লিডারশিপের অভাবে অনেক কষ্ট করছে। এমন নেতৃত্ব দরকার যারা মানুষের জন্য ভাববে, মানুষের সমস্যার সমাধান করবে। হৃদয়জয়ী নেতৃত্বের পথ তৈরিতে এই বইটি আলোকবর্তিকা হয়ে দাঁড়াবে। বইটিতে সেবাধর্মী নেতৃত্ব তৈরির কথা বলা আছে।

আমাদের জীবনের প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই নেতৃত্বের ভূমিকা অপরিসীম। নেতৃত্বদানের ক্ষমতা, নেতৃত্বদানের যোগ্যতা, নেতৃত্বদানের কৌশল রপ্ত করা প্রত্যেকের জন্যই খুব জরুরি। পরিবার থেকে শুরু করে সমাজ ও রাষ্ট্রও নেতৃত্বের কারণে বদলে যায়। নেতৃত্বের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা হয়তো সবার থাকে না। সেক্ষেত্রে বইটি পড়লে অনেকেই উপকৃত হবেন। বইটি প্রকাশিত হয়েছে পরিবার ডটনেট থেকে। বইটি পড়ে দেখতে পারেন, ভালোলাগবে আশাকরি।

লেখক : শিক্ষা উদ্যোক্তা, ক্যারিয়ার কাউন্সিলর ও ডিজিটাল মার্কেটিং কনসালটেন্ট

 

 

About পরিবার.নেট

পরিবার বিষয়ক অনলাইন ম্যাগাজিন ‘পরিবার ডটনেট’ এর যাত্রা শুরু ২০১৭ সালে। পরিবার ডটনেট এর উদ্দেশ্য পরিবারকে সময় দান, পরিবারের যত্ন নেয়া, পারস্পরিক বন্ধনকে সুদৃঢ় করা, পারিবারিক পর্যায়েই বহুবিধ সমস্যা সমাধানের মানসিকতা তৈরি করে সমাজকে সুন্দর করার ব্যাপারে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। পরিবার ডটনেট চায়- পারিবারিক সম্পর্কগুলো হবে মজবুত, জীবনে বজায় থাকবে সুষ্ঠুতা, ঘরে ঘরে জ্বলবে আশার আলো, শান্তিময় হবে প্রতিটি গৃহ, প্রতিটি পরিবারের সদস্যদের মানবিক মান-মর্যাদা-সুখ নিশ্চিত হবে । আগ্রহী যে কেউ পরিবার ডটনেট এর সাথে সঙ্গতিপূর্ণ যেকোনো বিষয়ে লেখা ছাড়াও পাঠাতে পারেন ছবি, ভিডিও ও কার্টুন। নিজের শখ-স্বপ্ন-অনুভূতি-অভিজ্ঞতা ছড়িয়ে দিতে পারেন সবার মাঝে। কনটেন্টের সাথে আপনার নাম-পরিচয়-ছবিও পাঠাবেন। ইমেইল: [email protected]

View all posts by পরিবার.নেট →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *